উইকএন্ড শেষে ক্লাস বা কাজে ফিরে যাওয়ার জন্য নতুন করে উদ্দীপনা খুঁজে পাওয়া কষ্টকর হলেও আমাদের সবারই তা করতে হয়। সপ্তাহের শুরুটা আসলে সবারই কঠিন মনে হয় কারণ উইকএন্ড সবারই সপ্তাহের সবচেয়ে পছন্দের সময়। চিন্তা করবেন না, অপরা উইনফ্রে এবং লিলি সিং এর মত সফল ব্যক্তিরাও একই সমস্যার ভেতর দিয়ে যান। তাই আমরা জানিয়ে দিচ্ছি সফল ব্যক্তিরা কর্মসপ্তাহের শুরুতে কী করেন, যাতে আপনিও অনুপ্রাণিত হয়ে নিজের সপ্তাহটা সুন্দরভাবে শুরু করতে পারেন।

সফলভাবে শুরু করুন আপনার সপ্তাহ - Bangalista

bad res ঘুম থেকে সকাল সকাল উঠে পড়ুন

ঘুম থেকে তাড়াতাড়ি উঠে পড়াটা এমন কোন বড় ব্যাপার মনে না হলেও এই বাড়তি আধা ঘণ্টা দিতে পারে অনেক কিছু গুছিয়ে নেওয়ার সুযোগ। আগেভাগেই ঘুম থেকে উঠে পড়লে সহকর্মীদের অনুরোধ বা ইমেইল গুলো আপনাকে তাড়া করার আগেই নিজের টু-ডু-লিস্টটা চেক করে নেওয়ার চমৎকার একটা সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন।

কর্মস্থানে ঠিক সময়ে পৌঁছানোর জন্য একটু আগে ভাগেই বেরিয়ে পড়ুন

সপ্তাহের শুরুতে কেউই চাই না সকালে ট্র্যাফিক জামে বসে থাকতে। এজন্য, সফল ব্যক্তিরা সকাল সকাল তাদের কর্মস্থানের উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান যাতে তাড়াতাড়ি পৌঁছে তারা ধীরেসুস্থে কাজের প্রস্তুতি নিতে পারেন।

প্রাইয়োরিটি লিস্টের প্রথমেই রাখুন ইমেল চেক

বার বার ই-মেইল চেক করলে মূল কাজে দেরি হয়। এজন্য ক্যারিয়ারে সফল ব্যক্তিরা সকালে একবার ই-মেইল চেক করেন এবং দিনের শীর্ষ খবরগুলি দেখে নেন। কোন গুরুত্বপূর্ণ ই-মেইল থাকলে রেসপন্ড করে নিন, কারণ দুপুরের পরে আবার ই-মেইল চেক করতে পারেন। কিছু কিছু ই-মেইলের উত্তর দেরি করে দিলেও কোন ক্ষতি নেই।

তৈরি করে রাখুন গানের প্লেলিস্ট

সঠিক একটা প্লেলিস্ট আপনার পুরো মুড বদলে দিতে পারে। একটু সময় নিয়ে উইকএন্ডে তৈরি করে রাখুন মনের মত একটি প্লেলিস্ট যা শুনলেই মন ভাল হয়ে যাবে।

হাসিখুশি থাকুন

হাস্যোজ্জল এবং ইতিবাচক থাকা হলো সপ্তাহ শুরু করার মূল চাবিকাঠি।আপনার মন হয়তো এখনও উইকএন্ডে আটকে আছে কিন্তু আপনি যদি সবার সাথে হাসিমুখে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন, তাহলে সবাই ভাল বোধ করবে, কাজে অনুপ্রাণিত হবে, এবং নিজের কাছেও ভাল লাগবে।

রুটিন করে রাখুন

অফিসে কী কী করতে হবে তা সফল ব্যক্তিরা অফিসে ঢোকার আগেই মনস্থির করে নেয়। তারা কাউকে জিজ্ঞেসা করেন না, নিজে থেকেই আগে প্রস্তুতি নিয়ে নেন। কোন কোন কাজ করা প্রয়োজন, সেটা তারা আগে থেকেই নির্ধারণ করে নেন, এবং এমন কোন কাজ করেন না যার কারণে কাজে বিলম্ব হতে পারে।একটা নির্দিষ্ট রুটিন মেনে চললে সারাদিন প্রোডাক্টিভ ও এনার্জেটিক লাগবে নিজেকে।

সপ্তাহের পরিকল্পনা করে রাখুন আগেই

সফল ব্যক্তিরা গুরুত্বের সাথে মনে রাখেন যে শনিবারের পরেই আসে রবিবার, এবং তার পরে আরো চারটি কর্মদিবস।তাই পুরো সপ্তাহের পরিকল্পনা তারা একবারে শুরুতেই করে রাখেন, যাতে সব কাজ সম্পন্ন করার জন্য পর্যাপ্ত সময় পাওয়া যায়।

পরের উইকএন্ডের জন্য এক্সাইটিং কিছু প্ল্যান করে রাখুন

শুনতে অদ্ভুত লাগলেও কথা সত্যি, কোন বন্ধুর সাথে ডিনার পরিকল্পনা করে রাখলে, অথবা সপ্তাহ শেষে সিনেমা দেখার পরিকল্পনা করে রাখলে, বা মজাদার অন্যান্য কিছু পরিকল্পনা করে রাখলে সপ্তাহজুড়ে কাজ করার উদ্দীপনা বেড়ে যায়।

[thb_gap height=”50″]

Related Articles

[thb_gap height=”35″][thb_postcarousel style=”style3″ columns=”5″][thb_gap height=”50″][thb_instagram style=”style2″ columns=”5″ link=”true” column_padding=”false” low_padding=”false” number=”9″]