Because coffee = life

https://ronzac.com/31384-orlistat-4698/ স্বাচ্ছন্দ্যে কাজ করার জন্য ইদানিং কফি শপগুলো ব্যাপক জনপ্রিয়তা পাচ্ছে। হালকা মিউজিকের সাথে গরম গরম কফি, ফ্রি ওয়াই-ফাই এবং আরামদায়ক একটি স্থানে কাজ করার জন্য আনন্দ এবং অনুভূতি অন্যরকম।  সাম্প্রতিক কিছু গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে কার্যক্ষম ভাবে কাজ করার জন্য কঠোর পরিশ্রমী মানুষের আশেপাশে কাজ করাই যথেষ্ট। আবার, আরো কিছু গবেষণায় এও দেখা গিয়েছে যে কফি শপে যে কথোপকথন ঘটে তা প্রোডাক্টিভিটি এবং সৃজনশীলতায় দারুণ প্রভাব ফেলে তাই চট করে জেনে নিন ঢাকার ভালো ভালো কফি শপগুলোর সন্ধান যা আপনার পেন্ডিং ডেডলাইনগুলো মিট করতে সাহায্য করবে!

নিরিবিলিতে কাজ করার জন্য ৫টি বেস্ট কফি শপ - Bangalista

actos tablet in pakistan ১) নর্থ এন্ড কফি রোস্টারস (শাহজাদপুর)

গুলশানের শাখা না, শাহজাদপুরের শাখার কথা বলছি। নর্থ এন্ডের আকর্ষণ অনেকটাই কমে গিয়েছে তাদের নতুন আউটলেট হওয়ার কারণে কিন্তু শাহজাদপুরের শাখা এখনো আগের মতই আছে। একটি সাধারণ সপ্তাহের দিনে গেলে দেখবেন অনেকেই একপাশে তাদের ল্যাপটপ নিয়ে বসে কাজ করছে। আরেকদিকে দেখবেন কয়েকজন পড়ালেখা করছে। এরকম আরামদায়ক পরিবেশে কার না কাজ করতে ইচ্ছা করবে? আর কাজে মনযোগ ধরে রাখার জন্য তাদের ফ্রেশ-রোস্টেড এবং সিঙ্গেল-অরিজিন কফি তো আছেই। নর্থ এন্ড তাদের কফি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করে যার কারণে তাদের কফি পুরো ঢাকার মধ্যে সেরা এবং এখানকার বারিস্তারাও অত্যন্ত আন্তরিক। তাই আর অপেক্ষা না করে এখনি গিয়ে এক কাপ সুস্বাদু কফি অর্ডার করুন এবং কাজ চালিয়ে যান!

খোলা থাকে-

শনিবার-বৃহস্পতিবার, সকাল ৮:৩০ – রাত ৯:৩০ পর্যন্ত

শুক্রবার সকাল ৮:৩০ – রাত ১০:০০ পর্যন্ত  

Masvingo prednisone ২) ক্রিমসান কাপ (বনানী)

পূর্বে কলাম্বাস কফি নামে পরিচিত, ক্রিমসান কাপ এখন তাদের অনেকগুলো শাখা করেছে।  যেহেতু বনানী কর্মজীবী মানুষদের কেন্দ্রস্থল, তাই সপ্তাহের যেকোন দিন সেখানে গেলেই দেখা যাবে একদল মানুষ যারা ছড়িয়ে-ছিটিয়ে নিজের মত করে তাদের কাজ করছে, পাশে একটা কফি এবং মজাদার কিছু স্ন্যাক্স। ক্রিমসান কাপ এ খুব সাশ্রয়ী মূল্যে খাবার পাওয়া যায়, এবং তাদের ইংলিশ ব্রেকফাস্ট থেকে শুরু করে পেস্ট্রি পর্যন্ত আছে যা খুবই স্বাস্থ্যসম্মত এবং মজাদার।  

খোলা থাকে-

প্রতিদিন সকাল ১০:০০ থেকে রাত ১২:০০ পর্যন্ত

Wattala paxlovid where to buy uk ৩) বিটারসুইট ক্যাফে (গুলশান-২)

বিটারসুইট ক্যাফে এমন একটি স্থান যা নিয়ে আপনি নিজে একটি নৈতিক দুশ্চিন্তায় পরে যাবেন – ক্ষণে-ক্ষণে মনে হবে “সবাইকে নিয়ে এখানে যাই”, আবার পরে মনে হবে, “না থাক! আমি একাই যাই” চিজকেকের জন্য এই দোকানটি দেশব্যাপী ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। যদিও গুলশানের শাখাটি অন্তত্য শান্তিপূর্ণ এবং স্বাচ্ছন্দ্যময় যা আপনাকে কাজ করতে অনুপ্রাণিত করবে, কিন্তু তাদের ধানমন্ডির শাখা খোলামেলা এবং বন্ধুবান্ধবদের সাথে আড্ডা দেয়ার জন্য ভাল ক্লায়েন্ট মিটিং এর জন্য এই জায়গাটি সবচেয়ে উপযুক্ত।

খোলা থাকে-

প্রতিদিন সকাল ১১:০০ থেকে রাত ১১:০০ পর্যন্ত  

pfizer paxlovid australia price ৪) ক্রিস্পি ক্রিম (বনানী)

এই অবিশ্বাস্য জায়গার উল্লেখ আমাদের তালিকায় না করলেই না! দুই তলা জুড়ে এই কফি শপ আনুমানিক ৫০০০ বর্গফুট জায়গার উপরে যা ক্রিস্পি ক্রিমের সর্বোত্তম বৈশিষ্ট্যযখন কাজে কোনই মতিগতি হচ্ছে না, তখন আপনি এই সুবিশাল এবং শান্তিপূর্ণ কফি শপে যেতে পারেন। পুরো ঢাকা শহরে অনেকগুলো আউটলেট খোলার পরও তারা তাদের মান বজায় রাখতে সক্ষম হয়েছে।

খোলা থাকে-

প্রতিদিন সকাল ৮:০০ থেকে রাত ১১:০০ পর্যন্ত  

http://iusevillaciudad.org/39431-how-to-buy-paxlovid-uk-75024/ ৫) জর্জ’স ক্যাফে (বনানী/ধানমন্ডি)

কখনো কখনো এক দিনের জন্য একটা টেবিলে ছড়িয়ে ছিটিয়ে কিছু কাজ সেরে ফেলাটাই সহায়ক। আধুনিক পরিবেশ এবং ফ্রেশ্ কফি, জর্জ’স ক্যাফে এমন একটা জায়গা যেখানে আপনি আপনার পছন্দের কফি নিয়ে বসে কাজ করতে পারবেন। ক্যাফেটাই এমন যেখানে প্রোডাক্টিভিটি এবং রিলাক্সেশন আছে পাশাপাশি। শুধুমাত্র ৪ বছরের মধ্যে জনপ্রিয়তা অর্জন করা এই ক্যাফে বিখ্যাত হয়েছে তাদের সুস্বাদু হটডগ এবং কফির জন্য। এছাড়াও তাদের সুবিশাল কাজের স্থান এবং আন্তরিক ইন্টেরিয়র ডিজাইন আপনাকে কাজ করার জন্য অনুপ্রাণিত করবে।

খোলা থাকে-

সকাল ৮:৩০ থেকে রাত ৯:০০ পর্যন্ত   

[thb_gap height=”50″]

Related Articles

[thb_gap height=”35″][thb_postcarousel style=”style3″ columns=”5″][thb_gap height=”50″][thb_instagram style=”style2″ columns=”5″ link=”true” column_padding=”false” low_padding=”false” number=”9″]